অপহরনের ২৪ দিন পরও সন্ধ্যান মেলেনি স্কুলছাত্রীর

প্রকাশিত: ১২:০৯ অপরাহ্ণ, মার্চ ১২, ২০২০ | আপডেট: ১২:১২:অপরাহ্ণ, মার্চ ১২, ২০২০

 

অপহরনের ২৪ দিন পরও সন্ধ্যান মেলেনি স্কুলছাত্রীর

মোঃ সেণ্টু তালুকদার:
কালকিনিতে ডাক্তার দেখানোর কথা বলে মুরশিদা আক্তার(১৬) নামে এক স্কুলছাত্রীকে অপহরন করে নিয়ে যায় তার চাচাতো ভাই। এ অপহরনের ২৪ দিন অতিবাহিত হলেও সন্ধ্যান মেলেনি ওই স্কুলছাত্রীর। এ ঘটনায় ওই স্কুলছাত্রীর পরিবার থানায় একটি অপহরন মামলা দায়ের করেছেন। অপহৃত মুরশিদা আক্তার উপজেলার খাতিয়াল উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেনীর ছাত্রী।
মামলা ও ভুক্তভোগীর পরিবার সুত্রে জানাগেছে, উপজেলার বালীগ্রাম এলাকার পূর্ববোতলা গ্রামের চাঁন মিয়া হাওলাদারের স্কুল পড়ুয়া মেয়ে মুরশিদা আক্তারের হঠাৎ করে সামান্য জ্বরে ভুগছিলেন। পরে এ সুযোগে তাকে ডাক্তার দেখানোর কথা বলে গত ১৮-০২-২০ইং তারিখে একেই এলাকার মজিদ আকনের ছেলে সাহাবুদ্দিন আকন রাস্তা থেকে জোরপূর্বক অপহরন করে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যায়। সাহাবুদ্দিন আকন ওই স্কুলছাত্রীর সম্পর্কে চাচাতো ভাই হয়। এ অপহরনের পর থেকে কোন খোঁজখবর মিলছে না মুরশিদার। এদিকে তাকে না পেয়ে মুরশিদার মা মাহিনুর বেগম উপজেলার ডাসার থানায় প্রথমে একটি সাধারন ডায়রী করেন। এরপরও তার কোন হৃদিস না পাওয়ায় মাহিনুর বেগম বাদী হয়ে গত ০৪-০৩-২০ইং তারিখে ডাসার থানায় একটি অপহরন মামলা দায়ের করেন। কিন্তু থানায় মামলা হলেও এ বিষয় পুলিশ কোন ব্যবস্থা নেননি বলে ভুক্তভোগী পরিবারের জানান।
ভুক্তভোগী স্কুলছাত্রীর মা মাহিনুর বেগম সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করে বলেন, আমার মেয়ে মুরশিদাকে ডাক্তার দেখানোর কথা বলে সাহাবুদ্দিন অপহরন করে নিয়ে গেছে। আজ পর্যন্ত আমার মেয়ের কোন সন্ধান পায়নি। আমার মেয়েকে অপহরন করে সাহাবুদ্দিন বর্তমানে গা ঢাকা দিয়ে আছে
এ বিষয় অভিযুক্ত সাহাবুদ্দিন আকনের সাথে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাকে এলাকায় পাওয়া যাযনি।
এ ব্যাপারে উপজেলার ডাসার থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মিলন মন্ডল বলেন, আসামী সাহাবুদ্দিন আকনকে গ্রেফতারের জোর চেষ্টা চলছে।