ঝালকাঠিতে ‘শুদ্বাচার পুরস্কার’ পেলেন ৩ কর্মকরর্তা-কর্মচারী

প্রকাশিত: ৫:১২ অপরাহ্ণ, জুন ২৬, ২০২০

ঝালকাঠিতে ‘শুদ্বাচার পুরস্কার’ পেয়েছেন ২ কর্মকর্তা ও ১ কর্মচার। ঝালকাঠি জেলা প্রশাসন কার্যালয়ের নেজারত ডেপুটি কালেক্টর (এনডিসি) আহম্মেদ হাছান ও ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলার ইউএনও সোহাগ হাওলাদারসহ ঝালকাঠি জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিক মো. শাহাদাৎ হোসেন চৌধুরী এই পুরস্কার পেয়েছেন।

জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সুগন্ধা সভাকক্ষে সারম্বরে অনুষ্ঠিত হয় এ পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান।

ঝালকাঠি জেলায় উত্তম শুদ্ধাচার চর্চায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণের পূর্বে জেলা প্রশাসন ঝালকাঠি’র উদ্যোগে বুধবার দিনব্যাপী শুদ্ধাচার কৌশল বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। পরে জেলা প্রশাসক মো. জোহর আলী শুদ্ধাচার চর্চায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন। জেলা পর্যায়ে ৫-১০ গ্রেড কর্মকর্তাদের মধ্যে আহম্মেদ হাছান এ পুরস্কারে ভূষিত হন।
চট্রগ্রাম বিভাগের বাঁশখালী উপজেলার কৃতিসন্তান আহমেদ হাছান চট্রগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মার্কেটিং বিষয়ে বি.বিএ এবং এম.বিএ ডিগ্রি অর্জন করে ৩৭ তম বিসিএস পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে সফলতার সাথে র্উর্ত্তীণ হয়ে যোগ দেন প্রশাসন ক্যাডারে। বর্তমানে ঝালকাঠি জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে সহকারী কমিশনার হিসেবে নেজারত ডেপুটি কালেক্টরের (এনডিসি) পদে দায়িত্ব পালন করছেন।

করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতি, ঘূর্ণিঝড় পূর্ব ও পরবর্তী কার্য সম্পাদনে সরকারের নির্দেশনা পালনে আহম্মেদ হাছানের ভুমিকা ছিল চোখে পড়ার মত। তাকে এই পুরস্কারে ভুষিত করায় জেলা প্রশাসক মো. জোহর আলী এবং বাছাই কমিটি ও সরকারের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে অভিনন্দন জানিয়েছে সুধীজনরা।

এছাড়াও ঝালকাঠিতে ১১-২০ গ্রেডের মধ্যে ঝালকাঠি জেলা প্রশাসন কার্যালয়ের অফিস সহায়ক শাহাদাত হোসেন চৌধুরী এবং উপজেলা পর্যায়ে রাজাপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সোহাগ হাওলাদারকে এ পুরস্কার প্রদান করা হয়।

উল্লেখ্য, ‘সোনার বাংলা গড়ার প্রত্যয়: জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল’ শিরোনামে সরকারের মন্ত্রণালয়, বিভাগ বা রাষ্ট্রীয় অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের নির্বাচিত কর্মকর্তা/কর্মচারীদের পুরস্কার প্রদানের উদ্দেশ্যে ২০১৭ সালে শুদ্ধাচার পুরস্কার নীতিমালা প্রণয়ন করে গেজেট প্রকাশ করা হয়।

Facebook Comments