নরেন্দ্রপুরে গৃহকর্তার যৌন লালসার শিকার পরিচারিকা, গ্রেপ্তার অভিযুক্ত

প্রকাশিত: ১:২২ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১, ২০১৯

একের পর এক ধর্ষণের ঘটনায় উত্তাল গোটা দেশ। হায়দরাবাদে তরুণী পশু চিকিৎসককে ধর্ষণ ও খুনের ঘটনায় রাগে ফুঁসছে সাধারণ মানুষ। তারই মধ্যে কালীঘাটে নাবালিকাকে গণধর্ষণের খবর শিরোনামে উঠে এসেছে। আর এবার গৃহকর্তার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ তুললেন এক পরিচারিকা। ঘটনা দক্ষিণ ২৪ পরগনার নরেন্দ্রপুর এলাকার। গৃহকর্তা সুব্রত কুইলার বাড়িতে দীর্ঘদিন ধরে কাজ করতেন ওই পরিচারিকা। অভিযোগ, সেই গৃহকর্তাই তাঁকে প্রথমে যৌন হেনস্তা ও পরে ধর্ষণ করে। নির্যাতিতা জানান, গত সোমবার বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগ নিয়ে সুব্রত তাঁকে ধর্ষণ করে। তাঁর অভিযোগের ভিত্তিতেই শুক্রবার গ্রেপ্তার করা হয় অভিযুক্তকে। আদালতে পেশ করা হলে তাকে ১৪ দিনের জেল হেফাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন বিচারপতি।

গোটা ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ। পঞ্চসায়র গণধর্ষণ কাণ্ডের ১৮ দিনের মাথায় কলকাতায় ফের দুই নাবালিকাকে গণধর্ষণের মতো কলঙ্কজনক ঘটনায় দক্ষিণ কলকাতার প্রাণকেন্দ্র কালীঘাট এলাকায় চাঞ্চল্যও ছড়ায়। আদিগঙ্গার কাছে ডেকে নিয়ে গিয়ে দুই নাবালিকাকে ধর্ষণ করা হয় বলে অভিযোগ। তারা দু’জনেই ফুটপাথের বাসিন্দা। এই ঘটনায় কালীঘাট থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়। শুক্রবার এক নাবালক-সহ মোট দু’জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ধৃতদের বিরুদ্ধে পকসো আইনে মামলা রুজু করা হয়। শনিবার আরও এক নাবালককে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। সেদিনই জুভেনাইল জাস্টিস বোর্ডে পেশ করা হয় তাকে। এবার গৃহকর্তার যৌন লালসার শিকার পরিচারিকা। দেশজুড়ে একের পর এক ধর্ষণের ঘটনায় ক্ষোভের আগুন জ্বলতে শুরু করেছে। প্রশ্ন উঠছে নারীদের নিরাপত্তা নিয়ে। কোথায় সুরক্ষিত মহিলারা? ছবিটা কি বদলাবে না? প্রশ্ন অনেক, উত্তর এখনও অধরা।

Facebook Comments