নিরস্ত্র শ্রমিকের উপর নির্বিচারে গুলি চালানো চরম অমানবিক- ইসলামী আন্দোলন চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা নেতৃবৃন্দ

প্রকাশিত: ১১:২৯ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৭, ২০২১ | আপডেট: ১১:২৯:অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৭, ২০২১

আলমগীর ইসলামাবাদী”চট্টগ্রাম জেলা প্রতিনিধিঃ- চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলাধীন গন্ডামারা ইউনিয়নে কয়লা বিদ্যুৎ শ্রমিকের উপর নির্বিচারে পুলিশের গুলি চালানোকে অমানবিক দাবি করে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা।আজ সংগঠনের সভাপতি মাওলানা ছগির আহমদ চৌধুরী এবং সেক্রেটারি আলহাজ্ব হাফেজ মাওলানা রুহুল্লাহ তালুকদার এক যৌথ বিবৃতিতে নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে।নেতৃবৃন্দ বলেন,পবিত্র রমজান মাসে শ্রমিকরা ইফতার ও নামাজের জন্য সময় বরাদ্দ এবং বেতন ভাতা আদায়ের লক্ষ্যে কর্তৃপক্ষের নিকট স্বারকলিপি পেশ করেন।তাতে কোন সমাধান না পাওয়ায় আজ শ্রমিকরা দাবি আদায়ে প্রতিবাদ সভা করেন।সেই প্রতিবাদ সভায় পুলিশ নির্বিচারে গুলি চালিয়েছে যা সংবিধান পরিপন্থী।

দেশের সংবিধান মানুষের কথা বলার অধিকার দিয়েছে।অথচ শ্রমিকরা দাবি আদায়ে মাঠে নামার কারণে তাদের উপর নির্বিচারে গুলি চালানো চরম অমানবিক।পবিত্র রমজানে শ্রমিকের রক্তে লাল আজ বাঁশখালীর মাটি।নিরস্ত্র শ্রমিকের উপর এভাবে গুলি চালানো বাংলাদেশ সংবিধান অনুযায়ী কি বৈধ? কেন নীরহ শ্রমিকের উপর গুলি চালাবেন? ইতোমধ্যে ৬ জন মারা গেছে বলে খবর পাওয়া গেছে।শতাধিক শ্রমিক আহত হয়েছে বলে গণমাধ্যমে প্রকাশ হয়েছে।নেতৃবৃন্দ নিহত পরিবার গুলোকে যথাযথ ক্ষতিপূরণ এবং আহত শ্রমিকদের চিকিৎসা খরচ দেওয়ার দাবি জানিয়েছে।যাদের প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ মদদে নির্বিচারে গুলি চালিয়েছে তাদের আইনের আওয়াতার আনার জোর দাবি করেন তারা।মানবাধিকার সংগঠন গুলোকে সোচ্চার হওয়ারও আহবান জানান নেতৃবৃন্দ।