হবিগঞ্জে পানিবন্দি কয়েক’শ পরিবার

প্রকাশিত: ১১:২০ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ২২, ২০২০

ফরিদ উদ্দিন মাসউদ হবিগঞ্জ প্রতিনিধি।।
হবিগঞ্জ জেলার আজমিরীগঞ্জ উপজেলায় হাওরের পানি বেড়েই চলেছে৷ পানি বৃদ্ধির সাথে সাথে পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন উপজেলার কয়েক শতাধিক পরিবার। আজমিরীগঞ্জ-কাকাইলছেও ইউনিয়নে যাতায়াতের একমাত্র সড়কটিও ডুবে গেছে৷ ফলে বিকল্প মাধ্যম হিসেবে আজমিরীগঞ্জ থেকে কাকাইছেও সড়কে গাড়ির বদলে নৌকা চলাচল শুরু হয়েছে৷
ইতিমধ্যে উপজেলার ৫টি ইউনিয়নে প্রায় ৫ শতাধিক পরিবার পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন। আর বাড়ি ঘরে পানি প্রবেশ করায় এসব এলাকায় বিশুদ্ধ পানির চরম সঙ্কট দেখা দিয়েছে৷
কিছু এলাকার লোকজন খাদ্য সঙ্কটের অভিযোগ করলেও উপজেলা প্রশাসন থেকে বলা হয়েছে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানদের মাধ্যমে খাদ্য সহায়তা পাঠানোর ব্যবস্থা করা হয়েছে৷
কয়েকদিনের ভারী বর্ষণে কালনী-কুশিয়ারা নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে উপজেলার ৫টি ইউনিয়নের কয়েক শতাধিক বাড়ি-ঘর তলিয়ে গেছে। আজমিরীগঞ্জ উপজেলা সদর থেকে কাকাইলছেও এলাকার লোকজনদের যাতায়াতের একমাত্র সড়কটিও পানিতে তলিয়ে গেছে৷
এদিকে হাওরের পানির ঢেউয়ে আজমিরীগঞ্জ থেকে শিবপাশা সড়কটির শান্তিপুর এলাকার ১ কি.মি. অংশে ভাঙন দেখা দিয়েছে৷ রবিবার থেকে ভারী বর্ষণ হওয়ায় শিবপাশা থেকে আজমিরীগঞ্জের সড়কটির কিছু অংশে ভাঙন দেখা দেয়৷ খবর পেয়ে উপজেলা এলিজিইডির কর্মকর্তাদের সাথে নিয়ে সড়কটি পরিদর্শন করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মতিউর রহমান খান৷ তিনি আপাতত বালির বস্তা দিয়ে সড়কটির ভাঙা অংশটি রক্ষার উদ্যোগ নিয়েছেন৷ কয়েকদিনের মধ্যেই জিও ব্যাগের বস্তা আসলে ভাঙন অংশটি পুরোপুরিভাবে কাজ করা হবে৷
এদিকে পানিবন্দি হয়ে পড়ায় বিশুদ্ধ পানির সঙ্কটে ভোগছেন ওই সব এলাকার কয়েক শতাধিক পরিবারের সদস্যরা। বিশেষ করে সবচেয়ে বেকায়দায় পড়েছেন শিশু ও বয়স্করা।
এ ব্যাপারে আজমিরীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মতিউর রহমান খান বলেন- উপজেলার ৫টি ইউনিয়নেই হাওরের পানি বেড়েছে৷ প্রায় কয়েক শতাধিক পরিবার পানিবন্দি অবস্থায় রয়েছেন। উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করা হচ্ছে৷ স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানদের মাধ্যমে সরকারী সহায়তা প্রদান করা হচ্ছে পানিবন্দি পরিবারগুলোকে। উপজেলা প্রশাসন আজমিরীগঞ্জ থেকে শিবপাশা সড়কটির ভাঙন অংশটিতে বালির বস্তা দিয়ে রক্ষা করার আপ্রাণ চেষ্টা করে যাচ্ছে বলেও জানান তিনি।

Facebook Comments